বাবুনগরীর বিবৃতি: আমি অব্যাহতি চাইনি

প্রকাশিত: ৪:৪০ অপরাহ্ণ, জুন ১৮, ২০২০

বাবুনগরীর বিবৃতি: আমি অব্যাহতি চাইনি

সিলেটের চাকরির খবর ডেস্ক:- মজলিসে শূরা বৈঠক শেষে আমি বিষয়টি জেনেছি। আল জামিয়াতুল আহলিয়া দারুল উলুম হাটহাজারী মাদ্রাসার পরিচালনা কমিটির সহযোগী পরিচালকের পদ থেকে ইস্তফার বিষয়ে কোনো মতামত জানতে চাওয়া হয়নি বা কিছু বলা হয়নি বলে দাবি করেছেন আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।

বুধবার (১৭ জুন) রাতে সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে বুধবার সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত মাদ্রাসার মজলিসে শুরার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠক শেষে শুরা সদস্য মাওলানা নোমান ফয়জী বৈঠকের সিদ্ধান্ত পাঠ করে শোনান। যেটি পরে লিখিত আকারে মাদ্রাসার ফেসবুক পেজে দেয়া হয়।

সেখানে নোমান ফয়জী বলেন, আল্লামা শাহ আহমদ শফী হুজুরের উপস্থিতিতে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী সাহেব শুরা কমিটির সদস্যদের মুঈনে মুহতামিমের পদ থেকে অব্যাহতি চেয়ে ইস্তফা দিয়েছেন। শুরা কমিটির সদস্যরা ওই ইস্তফার বিষয়টি গ্রহণ করেছেন এবং উনার স্থলে জামেয়ার সিনিয়র মুহাদ্দিস আল্লামা শেখ আহমদ সাহেবকে হযরত মুহতামিম সাহেব হুজুরের মুঈনে মুহতামিম হিসেবে নির্ধারণ করেছেন। একইসঙ্গে হযরত মুহতামিম সাহেব হুজুরের অবর্তমানে পরবর্তী শুরা কমিটির বৈঠকের আগ পর্যন্ত জামেয়ার এহতেমামীর দায়িত্ব হযরত আল্লামা শেখ আহমদ সাহেব পালন করবেন।

এদিকে বিবৃতিতে আল্লামা বাবুনগরী বলেন, শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী হুজুরের সভাপতিত্বে বুধবার হাটহাজারী মাদরাসার মজলিসে শূরার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। ওই বৈঠকের শেষ পর্যায়ে কিছু বিষয় সম্পর্কে জানতে আমাকে বৈঠকে ডাকা হয়েছে। সেসব বিষয়ে আমি আমার সুস্পষ্ট বক্তব্য শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী সাহেব ও শূরার সদস্যদের সামনে উপস্থাপন করেছি।

কিন্তু বৈঠকে শূরার সদস্যদের নিকট মুঈনে মোহতামীমের পদ থেকে পদত্যাগ চাওয়া বা পদত্যাগের বিষয়ে কোনোধরনের সম্মতি আমি প্রকাশ করিনি। অন্যদিকে বৈঠকে আমাকে মুঈনে মোহতামীমের পদ থেকে অব্যাহতি দেয়ার বিষয়ে শূরার সদস্যগণ আমাকে কিছুই বলেননি। বৈঠক শেষ হওয়ার অনেক পরে একজন শূরা সদস্য মুঈনে মোহতামীমের পদ থেকে আমাকে অব্যাহতির বিষয়টি জানিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, আমি জানতে পেরেছি, মাদ্রাসার অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে মাওলানা নোমান ফয়জীর বরাতে একটি ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় মাওলানা নুরুল আমীন সাহেবের বরাতে প্রচারিত হচ্ছে যে, আমি মজলিসে শূরার সদস্যদের কাছে মুঈনে মোহতামীম বা সহযোগী পরিচালকের পদ থেকে পদত্যাগের সম্মতি প্রকাশ করায় তারা আমাকে উক্ত পদ থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন। অথচ এ কথা ভিত্তিহীন। আমি শূরার সদস্যদের নিকট কোনও পদত্যাগ চাইনি।

সিলেটের চাকরির খবর / সৈয়দা তানিশা

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন